parbattanews bangladesh

উখিয়ায় অনিয়ম ও বেতন বৈশম্যের অভিযোগে এনজিও সংস্থা রিলিফ ইন্টারন্যাশনালের অফিসে তালা, চরম অসন্তোষ

উখিয়া প্রতিনিধি:

উখিয়ায় এনজিও সংস্থা রিলিফ ইন্টারন্যাশনালে কথায় কথায় স্থানীয় যুবকদেরকে চাকুরী থেকে ছাটাই, বেতন প্রদানে বৈশম্য ও অপারেশন ম্যানেজার অপূর্ব দাশের ব্যাপক অনিয়ম ও দুর্নীতির প্রতিবাদে ওই সংস্থার কার্যালয়ের প্রধান ফটকে তালা ঝুলিয়ে দেওয়া হয়। শুধু তাই নয় রোহিঙ্গা ক্যাম্প ভিত্তিক পরিচালিত এ সংস্থার বিরুদ্ধে দিন দিন ফুঁসে উঠছে স্থানীয় বাসিন্দারা।

এ দিকে গত সোমবার ক্ষুব্ধ কর্মীরা রিলিফ ইন্টারন্যাশনা সংস্থায় তালা ঝুলিয়ে দেওয়ার ঘটনায় পরিস্থিতি উপ্তত্ত হয়ে উঠলে পুলিশ প্রশাসন ঘটনা স্থলে পৌঁছে পরিবেশ নিয়ন্ত্রণে আনেন। তবে ওই সংস্থার ব্যাপক অনিয়ম, দুর্নীতি, স্বজনপ্রীতি ও বেতন বৈশম্যের প্রতিকার চেয়ে উখিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নিকট অভিযোগে উল্লেখ করা হয় রিলিফ ইন্টারন্যাশনাল সংস্থার অপারেশন ম্যানেজার অপূর্ব দাশ অতিসম্প্রতি স্থানীয় ক্ষতিগ্রস্ত এলাকার ১০/১২জন কর্মীকে চাকুরী চ্যুত করে। একই সাথে আরও কয়েকজনকে চাকুরী চ্যুত করার হুমকি দেয়। এছাড়া তিনি ক্ষমতার প্রভাব দেখিয়ে উত্তর বঙ্গের তার নিজস্ব এলাকার আত্মীয় স্বজনকে চাকুরী দিচ্ছে।

মোহাম্মদ শাহ জাহান জানান, পাভেল দাশ, সৈকত দাশ, জয়নালসহ বেশ কয়েকজনকে ইতিমধ্যে বিনা কারণে ছাটাই করেছে। অনেকেই অভিযোগ করে বলেছেন, রোহিঙ্গা ক্যাম্পে শেড নির্মাণের নামে অপূর্ব দাশ অনিয়ম ও দুর্নীতির মাধ্যমে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে।

অপর দিকে সিকিউরিটি গার্ডদেরকে বেতন বৈশম্যের মাধ্যমে ঠকানোর ঘটনা নিয়ে চরম অসন্তোষ দেখা দিয়েছে। ৩৬জন এমন কর্মচারীকে নামে মাত্র বেতন দিয়ে সিংহ ভাগ বেতন হাতিয়ে নেওয়া হচ্ছে। এমনকি ২৬জন রোহিঙ্গা যুবকদেরকে ওই পদে চাকুরী দিচ্ছে অপূর্ব দাশ। এ ঘটনার প্রতিকার চেয়ে গত রবিবার সকল কর্মচারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর লিখিত অভিযোগ প্রদান করেছেন বলে জানা গেছে।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে, সংস্থার অপারেশন ম্যানেজার অপূর্ব দাশ বলেন, আমাকে না জানিয়ে তারা অনাকাঙ্খিত ঘটনা করছে। তার পরও তাদের দাবি পুরুনে বেতন বৃদ্ধির জন্য হেড অফিসে যোগাযোগ করা হবে।