উখিয়ার সোনার পাড়ায় সন্ত্রাসী হামলা


উখিয়া প্রতিনিধি:

উখিয়ার সোনার পাড়া বাজারে দফায় দফায় নারকীয় বর্বর সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা নিয়ে এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। চিহিৃত সন্ত্রাসীদের বীর দর্পে মহড়া ও হুমকিধমকিতে সাধারণ জনগণসহ আহতের পরিবারের সদস্যরা জিম্মি হয়ে পড়েছে।

গত বৃহস্পতিবার বিকেলে কয়েক দফা সন্ত্রাসী হামলায় নারী-শিশু সহ ১০জন আহত হয়। এছাড়াও বাড়িসহ ৫টি যানবাহন ভাংচুর চালায়। ওই ঘটনায় ছৈয়দ নুর মনিয়া বাদী হয়ে ২০জনকে বিবাদী করে উখিয়া থানায় এজাহার দায়ের করেছে বলে জানা গেছে।

জানা যায়, জালিয়া পালং ইউনিয়ের পূর্ব সোনার পাড়া গ্রামের হাজী আলী হোসনের ছেলে সাদ্দামের সাথে সকালে একই এলাকার আবুল কালামের ছেলে মামুনের মধ্যে তুচ্চ ঘটনা নিয়ে তর্ক বির্তক হয়।

ওই ঘটনার জের ধরে একটি গ্রুপ সুসংঘটিত হয়ে ভারী অবৈধ অস্ত্র সজ্জিত হয়ে দফায় দফায় হামলা শুরু করে।

ছৈয়দ নুর মনিয়া অভিযোগ করে বলেন, মৃত ইউছুফ আলী মেম্বারের ছেলে সাবেক মেম্বার আবু তাহের, আবুল কালাম, মনজুর আলম প্রকাশ মনজুর ফকির, আবু ছিদ্দিক, আব্দু সালাম, মামুন ও রিয়াদের নেতৃত্বে ২০/২৫জন সন্ত্রাসী দা, কিরিস ও ভারী অস্ত্র নিয়ে বাড়িতে হামলা চালায়।

এ সময় সন্ত্রাসীদের হামলায় আহত হয়েছে হাজী আলী হোসেন (৬৮) স্ত্রী আবিদা খাতুন (৫০) মেয়ে স্কুল ছাত্রী জমিলা আক্তার (১৪) পুত্র বধু হুমাইরা আক্তার (২৫) ও ছৈয়দ নুরের স্ত্রী ফরিদা ইয়াসমিন (২৮) ও খাইরুল ইসলাম (২৮) ও দেড় মাস বয়সী শিশু। আহতদেরকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তারমধ্যে আলী হোছনের অবস্থা গুরুতর।

গৃহ কর্তা বয়োবৃদ্ধ হাজী আলী হোসেন অভিযোগ করে জানান, সন্ত্রাসীরা বাড়িতে ঢুকে ১টি ফ্রিজ, ২টি টিভি ও আসবাবপত্র ভাংচুর চালায়। শুধু তাই নয় গৃহবধুদেরকে শীলতাহানি করে স্বর্ণলংকার ছিনিয়ে নেয়। এর আগে সন্ত্রাসী গ্রুপের সদস্যরা প্রকাশ্যে বাজারে ৩টি মটর সাইকেল, ১টি সিএনজি ও ১টি টমটম ভাংচুর করে। এতে অন্তত ১৫ লক্ষ টাকা ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত যানবাহন পুলিশ হেফাজতে নিয়ে গেছে বলে জানা গেছে।

এদিকে খবর পেয়ে উখিয়া থানার ওসি, চেয়াম্যান নুরুল আমিন চৌধুরী, জালিয়া পালং ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি সাবেক চেয়ারম্যান এসএম. ছৈয়দ আলম মেম্বার রফিক উল্লাহ মেম্বার আবুল কালাম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

উখিয়া থানার ওসি. আবুল খায়ের জানান ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

স্থানীয় গ্রামবাসীরা জানান, ওই সন্ত্রাসী বাহিনীর সদস্যরা রেজুর ব্রিজ বিজিবি চেকপোস্টে হামলা, অস্ত্র লুটপাটের চেষ্টা ও নবনির্বাচিত মেম্বার রফিক উল্লাহ বাড়িতে হামলাসহ মাধরের অভিযোগ রয়েছে।

নিউজটি উখিয়া বিভাগে প্রকাশ করা হয়েছে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *