ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সুপারভাইজারের বিরুদ্ধে দুর্নীতি ও অনিয়মের অভিযোগ, আদালতে মামলা


 

উখিয়া প্রতিনিধি:

ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সুপারভাইজার নুরুল ইসলামের বিরুদ্ধে দুর্নীতি ও অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। শিক্ষকদের কাছ থেকে অতিরিক্ত উৎকোচ আদায়সহ হয়রানী এবং নারী শিক্ষকদের শীলতাহানি ও নারী কেলেঙ্কারীর ঘটনা নিয়ে ওই সুপারভাইজারের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা দায়ের করা হয়েছে। ইসলামিক ফাউন্ডেশনের জেলা ফিল্ড সুপারভাইজার ফজলুল করিম ঘটনার সত্যতা শিকার করে বলেন, বিষয়টি আমরা শুনেছি। এ নিয়ে তদন্ত হচ্ছে। অভিযোগ সত্য প্রমাণিত হলে তার বিরুদ্ধে দাপ্তরিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

জানা যায়, ইসলামি ফাউন্ডেশনের মসজিদ ভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রম কর্মসূচিতে উখিয়ায় সুপারভাইজার হিসাবে দায়িত্বরত ছিলেন, নুরুল ইসলাম। ২০১৫ সাল থেকে ২০১৭সাল পর্যন্ত দায়িত্বপালনকালে ব্যাপক অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ ছিল তার বিরুদ্ধে। উপজেলার ৫টি ইউনিয়নে ১৪০টি কেন্দ্র রয়েছে।

অভিযোগে জানা যায়, ভালুকিয়াবাজার পাড়া সহজ কোরআন শিক্ষা কেন্দ্রের শিক্ষক মোহাম্মদ ইসমাঈল উদ্দিন দক্ষিণ সোনার পাড়া কেন্দ্রের শিক্ষক মোজাম্মেল হক ও সোনাইছড়ি কেন্দ্রের শিক্ষক মোহাম্মদ অলি উল্লাহর কাছ থেকে বিভিন্ন অজুহাত দেখিয়ে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নেয়। এছাড়াও ছোট ইনানী প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষা কেন্দ্রের জমিলা আক্তারকে অহেতুক হয়রানী করে টাকা দাবি করার অভিযোগ রয়েছে। এমনকি প্রত্যেক শিক্ষকের কাছ থেকে ব্যাংক একাউন্ট করার নামে দেড় হাজার টাকা করে আদায় করেছে।

দায়িত্বশীল সূত্রে জানা যায়, তার এহেন লাগামহীন অনিয়ম দুর্নীতির কারণে উখিয়া থেকে বদলী করে পেকুয়া উপজেলা দায়িত্ব দেওয়া হয়। সেখানেও সুপারভাইজার নুরুল ইসলাম একই কায়দায় তার কর্মকাণ্ড শুরু করে। একজন প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষিকাকে অশালীন বাক্যউক্তি, অনৈতিক প্রস্তাব দেওয়ায় তার বিরুদ্ধে কক্সবাজার জেলা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালতে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের কক্সবাজার উপ-পরিচালক সরওয়ার আক্তার জানান, বিষয়টি ফিল্ড সুপারভাইজার ভাল ভাবে জানবে। তার সাথে যোগাযোগ করার জন্য প্রতিবেদককে অনুরোধ করেন।

নিউজটি উখিয়া বিভাগে প্রকাশ করা হয়েছে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *