আলোকিত জীবন গড়তে সকলকে বই পড়তে হবে: বিভীষণ কান্তি দাশ


নিজস্ব প্রতিবেদক, মাটিরাঙ্গা:

বই মানুষের জ্ঞানের জানালা খুলে দেয়, জ্ঞানকে বিকশিত করে এমন মন্তব্য করে আলোকিত জীবন গড়তে সকলকে বই পড়ার আহ্বান জানিয়েছেন মাটিরাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিভীষণ কান্তি দাশ। আগামী প্রজন্মকে বই পড়ার মাধ্যমে আলোকিত জীবন গড়ার পথে উৎসাহী করতে হবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি। বৃহস্পতিবার সকালের দিকে দিনব্যাপী বই মেলার উদ্বোধন কালে তিনি এসব কথা বলেন।

ভবিষ্যতেও এ ধরনরে শিক্ষা বিষয়ক কর্মসূচি অব্যাহত রাখার আহ্বান জানিয়ে মাটিরাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিভীষণ কান্তি দাশ বলেন, বইয়ের সাথে আগামী প্রজন্মের সম্মিলন ঘটাতে এ মেলা গুরুত্বপুর্ণ ভুমিকা রাখবে। তিনি বলেন, বইয়ের সাথে যাদের বন্ধুত্ব ছিল তারাই পৃথিবীতে জ্ঞানের আলো জ্বালিয়েছেন।

বই পড়ি, আলোকিত জীবন গড়ি এ শ্লোগানকে সামনে রেখে ইউএসএইডের অর্থায়নে ইনোভেশন ফর ইমপ্রুভিং আর্লি গ্রেড রিডিং এ্যাক্টিভিটি প্রকল্পের আওতায় ব্রাক, ব্রাক বিশ্ববিদ্যালয়, কনসার্ন ইউনিভার্সেল ও স্থানীয় এনজিও সংস্থা আলো যৌথভাবে এ মেলার আয়োজন করছে।

স্থানীয় এনজিও সংস্থা আলোর নির্বাহী পরিচালক অরুন কান্তি চাকমার সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন মাটিরাঙ্গা উপজেলা চেয়ারম্যান মো. তাজুল ইসরাম তাজু। মাটিরাঙ্গার সহকারী কমিশনার (ভুমি) মোহাম্মদ আলী, মাটিরাঙ্গা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সুবাস চাকমা, মাটিরাঙ্গা উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মোহাম্মদ আব্দুল হাই ও ব্রাকের জেলা প্রতিনিধি মো. হুমায়ুন কবীর বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন।

ইউনাইটেড পারপাস প্রতিনিধি শ্বাসতি দেওয়ান’র পরিচালনায় উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ব্রাকের শিক্ষা কর্মসূচির মাটিরাঙ্গা উপজেলা ব্যবস্থাপক মো. আলাউদ্দিন, ব্রাকের স্থানীয় কর্মী ওসমান আলী সোনার, মো. আতিকুর রহমান ও নিরেন সাহা প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

মেলামঞ্চে আলোচনা সভার পাশাপাশি সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, পঠন, চিত্রাঙ্কন, গল্প লেখা প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। দিনব্যাপী বই মেলায় মাটিরাঙ্গার আটটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বনশ্রী বিদ্যা নিকেতন, স্থানীয় তিনটি লাইব্রেরি ও ব্রাক শিক্ষা কর্মসূচিসহ ১৫টি স্টল মেলায় অংশগ্রহণ করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *