আ’লীগ সরকারের নতজানু পররাষ্ট্রনীতির কারণে রোহিঙ্গা সংকট সমস্যা সমাধানে ব্যর্থ হয়েছে: মির্জা আব্বাস


 

উখিয়া প্রতিনিধি:

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস সাংবাদিকদের বলেন, বর্তমান সরকার নতজানু পররাষ্ট্রনীতির কারণে আজ রোহিঙ্গা সংকট সমস্যা সমাধান করতে ব্যর্থ হয়েছে।

তিনি দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, দেশের আওয়ামী লীগ, জাতীয় পার্টি, জাসদসহ সব রাজনৈতিক দল প্যান্ডেল ও মঞ্চ তৈরি করে জনসভার মাধ্যমে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করছে। কিন্তু কেবল মাত্র বিএনপিকে ক্ষুধার্ত ও নির্যাতিত রোহিঙ্গাদের মাঝে ত্রাণ বিতরণে বাঁধা দেওয়া এ সরকারের স্বৈরাচারী মনোভাব বহিঃপ্রকাশ পায়।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য সাবেক মন্ত্রী মির্জা আব্বাসের নেতৃত্বে ৮ সদস্যের প্রতিনিধি দল বৃহস্পতিবার(১৪সেপ্টেম্বর) সকালে টেকনাফ ও বিকেলে উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করেন। পরিদর্শনকালে মির্জা আব্বাস এসব কথা বলেন।

বিএনপির প্রতিনিধি দলের সদস্যরা টেকনাফের শাপলাপুর, লেদা, মুচনি ও উখিয়ার থাইংখালী, বালুখালী ও কুতুপালং নতুন শরণার্থী ক্যাম্প পরিদর্শনের সময় উপস্থিত ছিলেন, বিএনপি স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খাঁন, বিএনপির চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা শামসুজ্জামান দুদু, বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক মাহমুবুর রহমান শামীম ও সাবেক কেন্দ্রীয় ছাত্রনেতা শারাফত আলী শফু।

প্রতিনিধি দলের সদস্যরা মায়ানমার সরকারের লেলিয়ে দেওয়া সেনাবাহিনীর অত্যাচার ও নির্যাতনের শিকার হয়ে পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের সাথে কথা বলেন। নির্যাতিত রোহিঙ্গারা সে দেশের আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর নিষ্ঠুর অত্যচার, গণহত্যা, বসত বাড়িতে অগ্নিসংযোগ, লুটপাটসহ জুলুম নির্যাতনের কথা তুলে ধরেন।

এসময় জেলা বিএনপির সভাপতি ও সাবেক সংসদ সদস্য শাহাজাহন চৌধুরী, উখিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান ও উখিয়া বিএনপির সভাপতি সরওয়ার জাহান চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক উখিয়া উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান সোলতান মাহমুদ চৌধুরী, টেকনাফ বিএনপির সভাপতি মো. জাফর আলম, উখিয়া উপজেলা যুবদলের সভাপতি আহসান উল্লাহসহ জেলা নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খাঁন সাংবাদিকদের জানান, রোহিঙ্গাদের নাগরিকত্ব ফিরিয়ে দেওয়া সহ মায়ানমারের গণহত্যা বন্ধ এবং সংকট সমাধানে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের নিকট আহ্বান জানান।

পরে বিএনপির প্রতিনিধি দলের সদস্যরা নির্যাতিত রোহিঙ্গাদের মাঝে নগদ অর্থ সহায়তা প্রদান করেন এবং টিউবওয়েল ও স্যানেটারী ল্যাট্রিন বসানোর প্রতিশ্রুতি দেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *