আ’লীগের নেতা অরবিন্দু চাকমার হত্যার প্রতিবাদে কাউখালীতে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ


 

কাউখালী প্রতিনিধি:

পার্বত্য জেলা রাঙ্গামাটির জুড়াছড়িতে জেএসএস’র জঙ্গি বাহিনী কর্তৃক উপজেলার আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অরবিন্দু চাকমার হত্যা ও বিলাইছড়ি উপজেলার আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি রাসেল মারমার উপর হামলার প্রতিবাদে এবং হত্যাকারীদের ফাঁসির দাবিতে কাউখালী উপজেলার আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠন বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে।

বুধবার(৬ ডিসেম্বর) বিকাল চারটায় উপজেলার মিনি মার্কেট দলীয় কার্যলয় থেকে বিক্ষোভ মিছিল শুরু হয়ে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে প্রেসক্লাব চত্ত্বরে সমাবেশ করে দলটি।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এরশাদ সরকারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অংসুইপ্রু চৌধুরী। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও কলমপতি চেয়ারম্যান ক্যজাই মারমা, যুগ্ম সম্পাদক শামছুদ্দোহা চৌধুরী, মো. বেলাল উদ্দিন, সাংগঠনিক সম্পাদক ক্যসিমং মারমা।

এ অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. নাজিম উদ্দিন প্রমুখ।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, পার্বত্য অঞ্চলকে অশান্ত করার নীল নকশা হিসেবে পাহাড়ের জঙ্গি সংগঠন জনসংহতি সমিতি  (জেএসএস)’র খুন, গুম, অপহরণ চাঁদাবাজির মাত্রা অতীতকে ছাড়িয়ে গেছে।

বক্তারা বলেন, ২ ডিসেম্বর শান্তি চুক্তির বর্ষ পূর্তিতে সন্তু লারমার উস্কানিমূলক বক্তব্যের পরক্ষণেই এ অঞ্চলে নতুন করে হত্যার রাজনীতি শুরু হয়ে গেছে।

বক্তরা আরো বলেন, বিজয়ের মাসে জুড়াছড়ি আওয়ামী লীগ নেতা অরবিন্দু চাকমাকে হত্যার মাধ্যমে সবুজ শ্যামল পার্বত্য জেলা আজ রক্তে রঞ্জিত। তারা বলেন, সন্তু লারমা যদি ভেবে থাকেন, নেতা কর্মীদের হত্যা এবং ভয় ভীতি দেখিয়ে আওয়ামী লীগকে পিছু হটাবেন তাহলে ভুল করবেন।

বক্তারা অবিলম্বে অরবিন্দু চাকমার হত্যাকারীদের ফাঁসি ও রাসেল মারমার উপর হামলাকারীদের গ্রেফতারের দাবি জানান। সমাবেশে বক্তারা আগামীকাল (বৃহস্পতিবার) সকাল সন্ধ্যা শান্তিপূর্ণ হরতাল পালনের জন্য নেতা কর্মী ও সাধারণ জনগণের প্রতি আহ্বান জানান।

image_pdfimage_print

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *