আলীকদমে জমি রেকর্ড সংশোধনের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন


আলীকদম প্রতিনিধি:

আলীকদমে ২নং চৈক্ষ্যং ইউপি চেয়ারম্যান ফেরদৌস রহমানের কেনা জমি রেকর্ড সংশোধনের প্রতিবাদে আলীকদম প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলন করা হয়।

সোমবার (৪মার্চ) বিকেলে সংবাদ সম্মেলন করেছেন একই ইউনিয়নের ৬ ব্যক্তি। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে তারা বলেন, ইউপি চেয়ারম্যান ক্ষমতা ও প্রভাব বিস্তার করে সাধারণ মানুষের ঘরবাড়ি ও দোকান প্লট দখলে নেয়। এসময় বক্তব্য পাঠ করেন মৃদুল কান্তি দাশ।

লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, ২৮৯নং চৈক্ষ্যং মৌজার শহর আলী, পিতা- মৃত মোহাম্মদ পেঠানের নামীয় হোল্ডিং নং- ১৮০ এর আন্দর ৪ একর জমি থেকে স্থানীয়রা বিভিন্ন সময় ০.৮২ শতক জমি ক্রয় করেন। ইউএনও অফিসে সম্পাদিত বায়না নামা রেজিস্ট্রী দলিল নং- ২৮৪/২০০৪, ২৯৭/২০০২, ৩০০/২০০৫, ২৮৩/২০০৫ ও নামজারি মামলা নং- ২৮/২০০০ মূলে এ হোল্ডিং থেকে জমি কিনেন নুরুল কবির মেম্বার, সাহানা বেগম, মৃদুল কান্তি দাশ, আইয়ুবুল ইসলাম মেম্বার, মহিউদ্দিন ও জাফর আলম।

এসময় ভূক্তভোগী মৃদুল কান্তি দাশ বলেন, আমি একজন সাধারন মানুষ। গত দুই যুগের বেশি সময় ধরে ১৮০ নং হোল্ডিং এর ৬ শতক জমি কিনে বসবাস করছি। এ জমি আমার শেষ সম্বল। চৈক্ষ্যং ইউপি চেয়ারম্যান ফেরদৌস চেয়ারম্যান আামর জমি কেড়ে নিয়ে আমাকে ভূমিহীন করার চক্রান্ত করছে।

একই অভিযোগ চৈক্ষ্যং ইউনিয়নের ৫নম্বর ওয়ার্ডের মেম্বার আইয়ুবুল ইসলামের। তিনি মুঠোফোনে জানান, চেয়ারম্যান জেনেশুনেই আমাদের ক্রয় করা জমি তার নামে রেকর্ড সংশোধন করার জন্য জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে আবেদন করেছেন। চেয়ারম্যানের কারণে এলাকায় যেকোন সময় শান্তিভঙ্গের আশংকা করছি আমি।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থাপিত তথ্যে দেখা যায়, গত ৪ ফেব্রুয়ারি ইউএনও মোহাম্মদ নায়িরুজ্জামান স্বাক্ষরিত একটি নোটিশের মাধ্যমে জমির মালিক মৃত শহর আলীর ১৪ জন ওয়ারিশকে ১৯ ফেব্রুয়ারি এ সংক্রান্ত একটি শুনানীতে হাজির হওয়ার নির্দেশ দেন। এর আগে জেলা প্রশাসক বরারর ফেরদৌস চেয়ারম্যান রেকর্ড সংশোধনের আবেদন করেন।

গত ১৯ ফেব্রুয়ারি নুরুল কবির, মৃদুল কান্তি দাশ ও আইয়ুবুল ইসলাম মেম্বার লিখিত আপত্তি দিয়ে দাবী করেন এসব জমি তাদের পূর্বের কেনা। চেয়ারম্যান মিথ্যা তথ্যের মাধ্যমে অন্যদের কেনা জমি রেকর্ড সংশোধন করে নেওয়ার চক্রান্ত করছে বলে আপত্তিতে বলা হয়।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে চৈক্ষ্যং ইউপি চেয়ারম্যান ফেরদৌস রহমান বলেন, জমির মূল থেকে আমি ১ একর জমি কিনেছি। এসব জমিই আমি রেকর্ড সংশোধন করার জন্য আবেদন করেছি। আপত্তিকারীদের জমি আমি কিনে নেয়নি।

নিউজটি আলীকদম বিভাগে প্রকাশ করা হয়েছে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *