আরও ৪০ শরর্ণাথী রুমা সীমান্তের এপারে আশ্রয় নিলো


নিজস্ব প্রতিনিধি:

দুই দিনের ব্যবধানে বান্দরবানের সীমান্ত দিয়ে মিয়ানমারের আরও ৪০ শরণার্থী বাংলাদেশে অনুপ্রবেশ করেছে। এর আগে গত সোমবার রাতে ১২৪ জন শরণার্থী বাংলাদেশে এসেছে। এই নিয়ে দুই দফায় মোট ২০৩জন মিয়ানমার নাগরিক বাংলাদেশে আশ্রয় নিলো।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে- বুধবার বান্দরবানের রুমা উপজেলার সীমান্তবর্তী রেমাক্রী পাংসাং এলাকা দিয়ে ৪০ পরিবার বাংলাদেশে এসে আশ্রয় নেয়। স্থানীয়দের সহযোগিতায় তারা সেখানে প্লাস্টিক মুড়িয়ে তাবু তৈরি করে থাকছেন।

এদিকে রুমা সীমান্তে আশ্রিত মিয়ানমার নাগরিকদের সর্বশেষ পরিস্থিতি জানতে সেনা ও বিজিবি’র একটি দল ওই এলাকা পরিদর্শন করেছেন।

এ প্রসঙ্গে বাংলাদেশ বর্ডার গার্ডের কক্সবাজার রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল জাহেদুর রহমান জানান- সীমান্ত এলাকায় শরণার্থীদের বর্তমান পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণে নিরাপত্তা বাহিনীর একটি টিম ঘটনাস্থলে পাঠানো হয়েছে।

এদিকে বাংলাদেশ সরকারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, মিয়ানমারের সাথে আমরা (বাংলাদেশ) বর্ডার সিল করে দিয়েছি। এখন আর কাউকে (রোহিঙ্গা বা অন্যান্য মিয়ানমার নাগরিক) ঢুকতে দেয়া হবে না।

বুধবার (৬ ফেব্রুয়ারি) বাংলাদেশে সফররত জাতিসংঘ শরণার্থী বিষয়ক সংস্থার (ইউএনএইচসিআর) বিশেষ দূত ও হলিউড অভিনেত্রী অ্যাঞ্জেলিনা জোলির সাথে বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রসঙ্গত, গত ডিসেম্বর থেকে মিয়ানমারের রাখাইন ও চীন রাজ্যে বিচ্ছিন্নতাবাদী দল আরাকান আর্মি (এএ) এর সাথে সে দেশের বিজিপি ও সেনাবাহিনীর সাথে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। বিশেষ করে এরপর থেকে শরণার্থীরা বাংলাদেশে আসার প্রস্তুতি শুরু করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *