আধিপত্য বিস্তারকে ঘিরেই পাহাড়ে একের পর এক হত্যাকাণ্ড ঘটছে: লে. কর্নেল কাজী শামশের


নিজস্ব প্রতিবেদক, মাটিরাঙ্গা:

‘পার্বত্যাঞ্চলে আধিপত্য বিস্তার ও চাঁদাবাজির টাকা ভাগবাটোয়ারাকে কেন্দ্র করেই পাহাড়ে একের পর এক হত্যাকাণ্ড সংঘঠিত হচ্ছে’ মন্তব্য করে মাটিরাঙ্গা জোন অধিনায়ক লে. কর্নেল কাজী শামশের উদ্দিন পিএসসিজি বলেছেন, পাহাড়ের আঞ্চলিক সংগঠনগুলো আজ নিজেদের মধ্যেই সংঘাতে জড়িয়ে পড়েছে।

তিনি বলেন, সন্ত্রাসীদের খাতায় নাম লিখিয়ে কেউ ফিরতে পারেনা। আর ফিরতে হলে লাশ হয়েই ফিরতে হয়। মাদকের দৌরত্ব অনেকটাই কমেছে উল্লেখ করে তিনি আবারও মাদক নির্মূলে সব মহলের সহযোগিতা কামনা করেন।

সোমবার (২৮ মে) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে মাটিরাঙ্গা জোন সদরে জোন নিয়ন্ত্রিত এলাকার আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে সরকারী কর্মকর্তা, নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি, সুশীল সমাজের প্রতিনিধি ও হেডম্যান-কার্বারীদের সমন্বয়ে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

অতীতের যে কোন সময়ের তুলনায় সাম্প্রতিক আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি অনেকটাই স্বাভাবিক রয়েছে মন্তব্য করে লে. কর্নেল কাজী শামশের উদ্দিন পিএসসিজি বলেন, এ পরিস্থিতির আরো উন্নতি ঘটাতে হবে। এজন্য সকলকে আন্তরিকভাবে কাজ করতে হবে।

ঘণ্টাব্যাপী মতবিনিময় সভায় মাটিরাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিভীষণ কান্তি দাশ, মাটিরাঙ্গা সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার মো. খোরশেদ আলম, মাটিরাঙ্গা থানার ওসি সৈয়দ মো. জাকির হোসেন, মাটিরাঙ্গা ফরেষ্ট রেঞ্জার মো. জহিরুল ইসলাম ও মাটিরাঙ্গার সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মো. আবুল হোসেন প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

নিরাপত্তা সম্মেলন ও মতবিনিময় সভায় মাটিরাঙ্গা জোনের জোনাল স্টাফ অফিসার মেজর ইমরুল কায়েস মেহেদী, মাটিরাঙ্গা প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমান ভুইয়া ও মাটিরাঙ্গা উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মো. রফিকুল ইসলাম ছাড়াও সামরিক-বেসামরিক কর্মকর্তা, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি, হেডম্যান-কার্বারী, শিক্ষক-সাংবাদিক, ধর্মীয় নেতা ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধিগণ উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *