অস্ত্র, মাদক, নারী ও শিশু পাচার নির্মূলে কঠোর ভূমিকায় থাকবে বিজিবি: লে. কর্ণেল নুরুজ্জামান


রামগড় প্রতিনিধি:

খাগড়াছড়ির রামগড়ে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)’র ৪৩-ব্যাটালিয়নের নবাগত অধিনায়ক ও রামগড় জোন কমান্ডার লে. কর্ণেল মোহাম্মদ নুরুজ্জামান বলেছেন, সীমান্তে অস্ত্র, মাদকদ্রব্য এবং নারী ও শিশু পাচার নির্মূল করতে কঠোর ভুমিকা পালন করা হবে। এসব অপরাধের সঙ্গে যারাই জড়িত থাকুক কাউকে ছাড় দেয়া হবে না।

বুধবার (১৬ মে) রামগড় পৌরসভার তৈচালাপাড়াস্থ ব্যাটালিয়ন সদর দপ্তরে অনুষ্ঠিত এক পরিচিতি সভায় দেয়া বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

‘প্রত্যেকে প্রত্যেকের ধর্মীয় অনুশাসন লালন পালন করলে সমাজে কোন অন্যায়, অবিচার, অপরাধ সংঘটিত হত না’ মন্তব্য করে তিনি বলেন, সন্তানরা এখন অতি আধুনিক বনে যাওয়ায় অভিভাবকদের অমান্য করছে, অবজ্ঞা করছে। তাই ছেলে মেয়েদের হাতে স্মার্ট ফোন দেয়া যাবে না। মোবাইল ফোনের অপব্যবহারে আজ ছেলে মেয়েরা নীতি নৈতিকতা বিবর্জিত কর্মকাণ্ডে জড়িয়ে পড়ছে, দূরে সরে যাচ্ছে লেখাপড়া থেকে।

জোন কমান্ডার আরও বলেন, সীমান্তে চোরাচালানসহ সকল প্রকার অপরাধ, সন্ত্রাসী তৎপরতা, মাদকদ্রব্যের বেচা বিক্রি ও ব্যবহার বন্ধ করতে হলে এলাকার সর্বস্তরের মানুষের সহযোগিতা প্রয়োজন।

বুধবার অনুষ্ঠিত এ পরিচিতি সভায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ৪৩-বিজিবি ব্যাটালিয়নের উপ-অধিনায়ক মেজর মো. হুমায়ুন কবির, রামগড় উপজেলা চেয়ারম্যান মো. শহীদুল ইসলাম ভুইয়া, উপজেলা নির্বাহি অফিসার মো. আল মামুন মিয়া, রামগড় সরকারি কলেজের উপাধ্যক্ষ অধ্যাপক মুহাম্মদ জয়নুল আবেদীন, হেয়াকো বনানী কলেজের অধ্যক্ষ ফারুকুর রহমান, রামগড় ইউপি চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক শাহা আলম মজুমদার, পাতাছড়া ইউপি চেয়ারম্যান মনিন্দ্র ত্রিপুরা, ফটিকছড়ির বাাগানবাজার ইউপি চেয়ারম্যান রুস্তম আলীসহ স্থানীয় বিভিন্ন দপ্তরের সরকারি কর্মকর্তা, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, জনপ্রতিনিধি, শিক্ষক ও সাংবাদিকবৃন্দ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *