অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টাইগারদের ঐতিহাসিক টেস্ট জয়


পার্বত্যনিউজ ডেস্ক:

মিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে টেস্ট সিরিজের প্রথম ম্যাচে জয় পেল টাইগাররা।

দীর্ঘ ১১ বছর পর বদলে যাওয়া বাংলাদেশের এমন রূপ প্রত্যাশা করেই বাংলাদেশে রওয়ানা দিয়েছিলো অজিরা। এসে ঠিকই যা ভেবেছিলো তেমন বিপদেই পড়েছে তারা। ঢাকা টেস্টে ২০ রানে জয় পেয়েছে টাইগাররা।

বাংলাদেশে আসা নিয়ে অস্ট্রেলিয়ার তালবাহানা কম হয়নি। বিগত কয়েক বছর আসবে আসবে বলেও বেশ কয়েকটা সফর বাতিল করে ওজিরা। ২০১৫ সালে নিরাপত্তা শঙ্কায় বাংলাদেশ সফর বাতিল করে অস্ট্রেলিয়া। এছাড়া ২০১১ সালে বাংলাদেশ সফর করে অস্ট্রেলিয়া। সেবার এফটিপিতে পূর্ণাঙ্গ সিরিজ থাকলেও শুধু তিনটি ওয়ানডে খেলেই দেশে ফেরত যায় দলটি।

শেষমেশ দুই টেস্টের জন্য বাঘের ঢেরায় পা রাখে ক্যাঙ্গারুর দল। তখনকার বাংলাদেশকে নিয়ে অস্ট্রেলিয়া না ভাবলেও এখন ঠিকই ভাবছে। বল মাঠে গড়ানোর আগে সাবেক ওজি ক্রিকেটারদের থেকে ভেসে আসা মন্তব্যে তেমন সুবাসই মিলল। তাছাড়া দুই পক্ষের ক্রিকেটারদের পাল্টা-পাল্টি বক্তব্য, দিয়েছিল যুদ্ধের আগাম বার্তা। মাঠে নেমে হাড়েহাড়ে বুঝল এটা কোন বাংলাদেশ। টের পেল সাকিবের তেজ কতখানি।

দুই ইনিংস মিলে ১০ উইকেট গিলেছেন সাকিব। ব্যাট হাতেও উজ্জ্বল তিনি। প্রথম ইনিংসে দলের দুঃসময়ে তার করা ৮৪ রান, লড়াইয়ে পুঁজি পায় বাংলাদেশ। খারাপ করেননি অন্যরাও। এক একজন টাইগার ক্রিকেটার লড়েছেন দাঁতে দাঁত লাগিয়ে। তবে অস্ট্রেলিয়াকে চূর্ণবিচূর্ণ করতে একটু বেশিই অবদান তামিম, মিরাজ এবং তাইজুলের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *