অবৈধভাবে বালু উত্তোলনে হুমকির মুখে বসতি ও আবাদি জমি, প্রশাসন নীরব


 

চকরিয়া প্রতিনিধি:

কক্সবাজারের চকরিয়া সীমান্তবর্তী লামা উপজেলার ফাইতং ইউনিয়নে ছড়াখাল থেকে অবৈধ ভাবে বালু উত্তোলনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। দীর্ঘদিন ধরে স্থানীয় একটি প্রভাবশালী চক্র প্রশাসনের কোন ধরণের অনুমতি ছাড়া অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করে দিব্যি চালিয়ে আসছে বালু বাণিজ্য।

এ অবস্থার কারনে খালের আশপাশের অন্তত তিন শতাধিক জনবসতি হুমকির মুখে পড়েছে। ভেঙ্গে যাচ্ছে কৃষকের বিপুল পরিমাণ আবাদি জমি। ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে জনগনের চলাচলের একটি সেতুও।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, বালু উত্তোলনের স্থানটি চকরিয়ার বানিয়ারছড়া স্টেশনের একটু ভেতরে লামা উপজেলার ফাইতং ইউনিয়নের ৪নম্বর ওয়ার্ডের খেদারবানস্থ ইসলামিক মিশন এলাকায়। কয়েকবছর ধরে অনেকটা বিনা বাঁধায় অভিযুক্ত চক্রটি বালু উত্তোলন করে দিব্যি ব্যবসা করে আসলেও লামা উপজেলা প্রশাসন অধ্যবদি অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে কোন ধরণের আইনী ব্যবস্থা গ্রহন করেনি।

ফলে জড়িতরা দিগুন দাপটের সাথে চালিয়ে আসছে অবৈধ বালু বাণিজ্য। ছড়াখাল থেকে বালু উত্তোলনের কারনে স্থানীয় জমি মালিক ডা.বেলাল উদ্দিন, মাস্টার সালাহ উদ্দিন, ছৈয়দ আহমদ, ডা. জাহাংগীর আলমসহ অনেকে বিপুল পরিমাণ আবাদি জমি ও বসতঘর ভেঙ্গে খালে তলিয়ে যাওয়ার উপক্রম হয়েছে।

স্থানীয়রা অভিযোগ করে জানিয়েছেন, বালু উত্তোলনে জড়িত রয়েছেন স্থানীয় মৌলভী হাসান আলীর ছেলে মারুফ, মুছা আলীর ছেলে আরাফাত ইসলাম, নুর হোসেনের ছেলে রিফাত, ফুল মিয়ার ছেলে জামাল উদ্দিন, মৃত মো. মোস্তাফার ছেলে সাদ্দাম হোসেনসহ তাদের লোকজন।

স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের মেম্বার ছরওয়ার আলম জানিয়েছেন, অভিযুক্তরা দীর্ঘদিন ধরে ছড়াখাল থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের ব্যবসা করে আসলেও এব্যাপারে প্রশাসন বা ইউনিয়ন পরিষদের কোন ধরণের অনুমতি নেই। তাঁরা মূলত দাপট দেখিয়ে অবৈধভাবে বালু ব্যবসা করে আসছেন।ছড়াখাল থেকে এভাবে বালু উত্তোলনের কারনে বর্তমানে প্রতিনিয়ত হুমকির মুখে পড়েছে এলাকার জনবসতি ও আবাদি জমি এবং জনসাধারণের চলাচলের সেতু।

এ ব্যাপারে ফাইতং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জালাল উদ্দিন কোম্পানী বলেন, ছড়াখাল থেকে বালু উত্তোলনের কারনে এলাকার জনবসতি ভাঙ্গনের কবলে পড়েছে। স্থানীয় অনেকে ঘটনাটি আমাকে জানিয়েছে। যাঁরা এ কাজে জড়িত তাদের কোন ধরণের সরকারি অনুমোদন নেই। বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নজরে আনা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *